২৮শে মে, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ, মঙ্গলবার,বিকাল ৫:৪৭

মারা গেছেন বর্ষীয়ান অভিনেতা ওয়াসিম

প্রকাশিত: এপ্রিল ১৮, ২০২১

  • শেয়ার করুন

চলচ্চিত্র অঙ্গনে শোকের ছায়া। একের পর এক হারিয়ে যাচ্ছেন গুণী ব্যক্তিত্বরা। কিংবদন্তী অভিনেত্রী সারাহ বেগম কবরীর মৃত্যুর ঠিক ২৪ ঘন্টার মধ্যে মারা গেছেন বাংলা চলচ্চিত্রের আরেক বর্ষীয়ান অভিনেতা ওয়াসিম।

শনিবার দিবাগত রাত ১২টা ৪০ মিনিটে তিনি শেষ নিঃশ্বাস ত্যাগ করেন (ইন্নালিল্লাহি ওয়া ইন্না ইলাইজি রাজিউন)।মৃত‍্যুকালে তার বয়স হয়েছিল ৭১ বছর।

ওয়াসিমের মৃত্যু সংবাদটি নিশ্চিত করেন রাজধানীর শাহাবুদ্দীন মেডিকেলের চিকিৎসক ড. জয়ন্ত নারায়ণ  শর্মা ও বাংলাদেশ চলচ্চিত্র শিল্পী সমিতির সাধারণ সম্পাদক জায়েদ খান খবরটি নিশ্চিত করেছেন।

রাত ১টার দিকে এই চিকিৎসক জানান, নায়ক ওয়াসিমকে ১২টা ৩৫ এর দিকে শাহাবুদ্দীন মেডিকেলে নিয়ে আসেন তার ছেলে। তখন আমরা চেকাপ করে দেখি পেশেন্ট মৃত। পালস, বিপি কিছুই পাইনি।

বেশকিছু দিন ধরেই ওয়াসিম অসুস্থ ছিলেন। ঠিকমতো হাঁটতেও পারছিলেন না। ব্রেনে ছিলো জটিলতা। কয়েক দফায় হাসপাতালেও নেয়া হয়।

বাংলা চলচ্চিত্রের সোনালি দিনের নায়ক ওয়াসিম। মোহসিন পরিচালিত ‘রাতের পর দিন’ চলচ্চিত্রের মাধ্যমে প্রথম নায়ক হিসেবে রূপালী পর্দায় আসেন তিনি। সিনেমাটি ব্যবসাসফল হলে কম সময়েই ‘সুপারস্টার’ হয়ে উঠেন। ১৯৭৬ সালে মুক্তি পাওয়া এস এম শফী পরিচালিত ‘দি রেইন’ সিনেমা তার ক্যারিয়ারের মাইলফলক। কারণ এই ছবির কারণেই সব শ্রেণির দর্শকের কাছে জনপ্রিয় হয়ে উঠেন তিনি।ওয়াসিম অভিনীত উল্লেখযোগ্য সিনেমাগুলো হলো ‘দি রেইন’, ‘ডাকু মনসুর’, ‘জিঘাংসা’, ‘কে আসল কে নকল’, ‘বাহাদুর’, ‘দোস্ত দুশমন’, ‘মানসী’, ‘দুই রাজকুমার’, ‘সওদাগর’, ‘নরম গরম’, ‘ইমান’, ‘রাতের পর দিন’, ‘আসামি হাজির’, ‘মিস লোলিতা’, ‘রাজ দুলারী’, ‘চন্দন দ্বীপের রাজকন্যা’, ‘লুটেরা’, ‘লাল মেম সাহেব’, ‘বেদ্বীন’, ‘জীবন সাথী’, ‘রাজনন্দিনী’, ‘রাজমহল’, ‘বিনি সুতার মালা’, ‘বানজারান’।

সত্তর ও আশির দশকে চলচ্চিত্রে শীর্ষ নায়কদের একজন ছিলেন ওয়াসিম। দেড় শতাধিক চলচ্চিত্রে অভিনয় করেছেন বাংলা সিনেমার এই ‘সওদাগর’।

ভাল লাগলে শেয়ার করুন
  • শেয়ার করুন