২৩শে এপ্রিল, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ, মঙ্গলবার,রাত ৯:০৫

প্রেমের ফাঁদে ফেলে স্কুলছাত্রীকে ভারতে পাচারকালেযুবক আটক, ভিকটিম উদ্ধার

প্রকাশিত: জুন ২৮, ২০২০

  • শেয়ার করুন

সীমান্ত ব্যুরো প্রধান : প্রেমের ফাঁদে ফেলে দশম শ্রেণীর এক ছাত্রীকে পাচারের চেষ্টাকালে জনতা এক যুবককে আটক করে পুলিশে সোপর্দ করেছে। এ সময় উদ্ধার করা হয়েছে ওই স্কুল ছাত্রীকে। শনিবার রাতে সাতক্ষীরার ভোমরা স্থলবন্দরের ফলের মোড় থেকে এ আটক ও উদ্ধারের ঘটনা ঘটে।
আটককৃত যুবকের নাম ইয়াছিন শরীফ (২২)। সে মাগুরা জেলার শ্রীপুর উপজেলার দখলপুর গ্রামের ইকমান শরিফের ছেলে।
এাগুরা জেলা সদরের বরিশআট গ্রামের এক কৃষক জানান, তার মেয়ে স্থানীয় একটি মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের ১০ম শ্রেণীর ছাত্রী। পার্শ্ববর্তী দখলপুর গ্রামের ইয়াছিন শরিফের সঙ্গে মোবাইলে তার পরিচয় হয়। পরে তাদের সঙ্গে প্রেমের সম্পর্ক গড়ে ওঠে। ইয়াছিন শরিফ ও তার বাবা শ্রীপুর উপজেলা সদরের বাসস্ট্যাণ্ডে একটি কাপড়র দোকানের কর্মচারি। একপর্যায়ে ভারতে আত্মীয়ের বাড়িতে বেড়াতে যাওয়ার নাম করে ইয়াছিন তার মেয়েকে শনিবার সন্ধ্যায় সাতক্ষীরার ভোমরা সীমান্তে নিয়ে আসে। ভোমরা স্থলবন্দরের ফল মোড় নামক স্থানে কয়েকজন যুবকের সঙ্গে ইয়াছিন কথা বলার সময় সন্দেহ হয় মেয়ের। তখন সে বিষয়টি মোবাইল ফোনে তাকে (বাবা) জানায়। একইসাথে চিৎকার করায় স্থানীয়রা ইয়াছিনকে আটক ও মেয়েটিকে উদ্ধার করে জাহাঙ্গীর মার্কেটে বসিয়ে রেখে পুলিশে খবর দেয়। উপপরিদর্শক মানিক সাহা ইয়াছিনকে আটক ও মেয়েটিকে উদ্ধার করে সাতক্ষীরা সদর থানায় নিয়ে আসে।
সাতক্ষীরা সদর থানার উপপরিদর্শক মানিক সাহা জানান, এ ঘটনায় মেয়েটির বাবা বাদি হয়ে ইয়াছিনসহ ভোমরা এলাকার চার যুবকের বিরুদ্ধে মানবপাচার আইনের ৪ ধারায় মামলা দায়ের করেছেন। উদ্ধার হওয়া মেয়েটি বিচারিক হাকিম ইয়াছমিন নাহারের কাছে ২২ ধারায় জবানবন্দি দিয়েছে।

ভাল লাগলে শেয়ার করুন
  • শেয়ার করুন