২২শে মে, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ, বুধবার,রাত ১২:৪৭

পরমাণু বোমা বহনকারী যুদ্ধবিমান দিয়ে ন্যাটোর মহড়া

প্রকাশিত: অক্টোবর ১৫, ২০২২

  • শেয়ার করুন

ইউক্রেনে যুদ্ধক্ষেত্রে বড় সামরিক বিপর্যয়ের পরে রাশিয়া বারবার পারমাণবিক হামলার হুমকিতে সৃষ্ট উত্তেজনার মধ্যেই বার্ষিক পরমাণু মহড়া চালানোর ঘোষণা দিয়েছে মার্কিন নেতৃত্বাধীন সামরিক জোট ন্যাটো।

শুক্রবার (১৪ অক্টোবর) ন্যাটো বলেছে, সোমবার (১০ অক্টোবর) তার বার্ষিক পারমাণবিক মহড়া ‘স্টিডফাস্ট নুন’ শুরু করবে। যেখানে ৬০টি বিমান বেলজিয়াম, উত্তর সাগর এবং ব্রিটেনের উপর দিয়ে প্রশিক্ষণ ফ্লাইটে অংশ নেবে।

শুক্রবার ন্যাটো তার ওয়েবপেজে এক বিবৃতিতে বলেছে, বেলজিয়াম এই মহড়ার আয়োজন করছে যাতে ১৪টি দেশ এবং ৬০টি বিমান জড়িত থাকবে। যার মধ্যে রয়েছে বাজারে সবচেয়ে উন্নত ফাইটার জেট এবং ইউএস বি-৫২ দূরপাল্লার বোমারু বিমান যা নর্থ ডাকোটার মিনোট এয়ার বেস থেকে উড়ে যাবে।

বিবৃতিতে আরও বলা হয়েছে, ৩০ অক্টোবর (রোববার) পর্যন্ত চলমান মহড়ায় কোনো লাইভ অস্ত্র ব্যবহার করা হবে না। এ ছাড়াও বলা হয়েছে, এই মহড়াটি একটি নিয়মিত, পুনরাবৃত্তিমূলক প্রশিক্ষণ কার্যকলাপ এবং এটি বর্তমান বিশ্বের কোনো ইভেন্টের সঙ্গে যুক্ত নয়।

ন্যাটোর মুখপাত্র ওয়ানা লুঙ্গেস্কু বলেছেন, এই মহড়া নিশ্চিত করতে সাহায্য করে যে জোটের পারমাণবিক প্রতিরোধক নিরাপদ, সুরক্ষিত এবং কার্যকর থাকবে। এর আগে মঙ্গলবার (১১ অক্টোবর), ন্যাটো প্রধান জেনস স্টলটেনবার্গ স্পষ্ট জানান, উত্তেজনাপূর্ণ আন্তর্জাতিক পরিস্থিতি সত্ত্বেও জোট তাদের মহড়া চালিয়ে যাবে।

উল্লেখ্য, ন্যাটোর এই মহড়া ‘স্টেডফাস্ট নুন’ মস্কোর নিজস্ব বার্ষিক পারমাণবিক মহড়ার সাথে সাংঘর্ষিক হতে পারে, যার নাম ‘গ্রম’। যা সাধারণত অক্টোবরের শেষের দিকে পরিচালিত হয় এবং যেখানে রাশিয়া তার পারমাণবিক সক্ষম বোমারু বিমান, সাবমেরিন এবং ক্ষেপণাস্ত্র পরীক্ষা করে। তবে ন্যাটো বলেছে, রাশিয়ার সঙ্গে এই মহড়ার কোনো সর্ম্পক নেই। সূত্র: রয়টার্স

ভাল লাগলে শেয়ার করুন
  • শেয়ার করুন