১৭ই জুলাই, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ, বুধবার,বিকাল ৩:৩৫

শিরোনাম
সব শিক্ষা প্রতিষ্ঠান বন্ধ ঘোষণা, স্থগিত বৃহস্পতিবারের এইচএসসি পরীক্ষাও মুক্তিযোদ্ধাদের সর্বোচ্চ সম্মান দেখাতে হবে: প্রধানমন্ত্রী খুলনা মহানগরীর নতুন রাস্তা, জিরোপয়েন্ট ও শিববাড়ি মোড়ে সড়ক অবরোধ কেএমপি খুলনার অফিসার্স মেসের উদ্বোধন করেন আইজিপি খুলনায় আওয়ামী লীগের ৭৫তম প্রতিষ্ঠা বার্ষিকী পালিত খুলনা জেলা আ’লীগের উদ্যোগে প্রতিষ্ঠা বার্ষিকী পালিত কয়রায় মহসিন রেজা, ডুমুরিয়ায় এজাজ ও পাইকগাছায় আনন্দ চেয়ারম্যান নির্বাচিত খুলনায় নির্বাচন পরবর্তী সহিংসতা বিষয়ে সংবাদ সম্মেলন ফেরদৌস আহম্মেদ’র প্রধানমন্ত্রী গরিব-দু:খী মানুষের ভাগ্যের উন্নয়ন করে চলেছেন-কেসিসি মেয়র

নানা অনিয়মের বিরুদ্ধে বিক্ষোভ করছেন খুলনা বিশ্ববিদ্যালয়ের ছাত্রীরা

প্রকাশিত: আগস্ট ১৭, ২০২২

  • শেয়ার করুন

রাইস কুকারসহ রান্নার সরঞ্জামাদি ও বৈদ্যুতিক বিভিন্ন যন্ত্র জব্দ এবং শিক্ষার্থীকে শোকজের প্রতিবাদে বিক্ষোভ করছেন খুলনা বিশ্ববিদ্যালয়ের (খুবি) অপরাজিতা হল ও বঙ্গমাতা হলের শিক্ষার্থীরা।

মঙ্গলবার (‌১৬ আগস্ট) রাত সাড়ে দশটার দিকে হলের তালা ভেঙে মূল ফটকের সামনে অবস্থান নেন অপরাজিত হলের শিক্ষার্থীরা। পরে তাদের সাথে সংহতি জানিয়ে অবস্থান নেন বঙ্গমাতা হলের শিক্ষার্থীসহ অন্যান্যরা। এর আগে, সন্ধ্যা সাড়ে সাতটার দিকে রান্নার বিভিন্ন সরঞ্জামাদি হলের বাইরে রাখার নির্দেশ দেয় হল প্রশাসন।

জানা যায়, মঙ্গলবার অপরাজিতা হলের এক ছাত্রী বটি দিয়ে গলা কাটার চেষ্টা করে। এর পরই হলে ছাত্রীদের রান্না করার সরঞ্জামাদি, ইলেকট্রনিক ডিভাইস জব্দ করার নির্দেশ দেয় প্রশাসন। পরবর্তীতে এসব সরঞ্জাম কারো রুমে পাওয়া গেলে তার সিট বাতিল করার হুমকিও দেয়া হয়। এছাড়াও প্রশাসনের বাজে আচরণ নিয়েও ক্ষোভ আছে শিক্ষার্থীদের। এসবের প্রতিবাদেই আন্দোলনে নামে শিক্ষার্থীরা।

শিক্ষার্থীরা বলছেন, যেসব জিনিস ব্যবহারে নিষেধাজ্ঞা দেয়া হয়েছে সেগুলো তারা ব্যবহার করতে চান। সবাই স্বচ্ছল পরিবারের সন্তান না জানিয়ে তারা বলেন, এগুলো ব্যবহার না করলে তাদের জীবনধারণই কঠিন হয়ে পড়বে। সামান্য পানি গরম করা যাবে না, চা বানিয়ে খাওয়া যাবে না; এরকম তো চলতে পারে না। যতক্ষণ না লিখিতভাবে দাবি মেনে না নেয়া হচ্ছে ততক্ষণ পর্যন্ত জায়গা ছেড়ে না যাওয়ারও ঘোষণা দেন আন্দোলনরত শিক্ষার্থীরা।

ভাল লাগলে শেয়ার করুন
  • শেয়ার করুন