১৭ই জুলাই, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ, বুধবার,বিকাল ৩:৪৭

শিরোনাম
সব শিক্ষা প্রতিষ্ঠান বন্ধ ঘোষণা, স্থগিত বৃহস্পতিবারের এইচএসসি পরীক্ষাও মুক্তিযোদ্ধাদের সর্বোচ্চ সম্মান দেখাতে হবে: প্রধানমন্ত্রী খুলনা মহানগরীর নতুন রাস্তা, জিরোপয়েন্ট ও শিববাড়ি মোড়ে সড়ক অবরোধ কেএমপি খুলনার অফিসার্স মেসের উদ্বোধন করেন আইজিপি খুলনায় আওয়ামী লীগের ৭৫তম প্রতিষ্ঠা বার্ষিকী পালিত খুলনা জেলা আ’লীগের উদ্যোগে প্রতিষ্ঠা বার্ষিকী পালিত কয়রায় মহসিন রেজা, ডুমুরিয়ায় এজাজ ও পাইকগাছায় আনন্দ চেয়ারম্যান নির্বাচিত খুলনায় নির্বাচন পরবর্তী সহিংসতা বিষয়ে সংবাদ সম্মেলন ফেরদৌস আহম্মেদ’র প্রধানমন্ত্রী গরিব-দু:খী মানুষের ভাগ্যের উন্নয়ন করে চলেছেন-কেসিসি মেয়র

জাতিসংঘে ভারতকে নিয়ে তামাশা করল চীন!

প্রকাশিত: সেপ্টেম্বর ২৩, ২০২০

  • শেয়ার করুন

জাতিসংঘে এবারের অধিবেশনে রীতিমতো অন্য চীনের হয়ে বক্তব্য দিলেন শি জিনপিং। আগ্রাসী খোলস থেকে বেরিয়ে শান্তির বার্তা দিয়ে গেলেন। লাদাখসহ ভারতীয় সীমান্তে যুদ্ধাবস্থা বজায় রেখেই বিশ্ববাসীর সামনে তুলে ধরলেন শান্তির বাণী। এ যেন ভারতকে নিয়ে তামাশায় নেমেছে চীন কর্তা জিনপিং।

‘কোনও দেশের সঙ্গে শীতল বা উত্তপ্ত যুদ্ধে জড়িয়ে পড়ার অভিপ্রায় চীনের নেই।’ জিনপিং এর মতে, প্রতিবেশী দেশের মধ্যে মতপার্থক্য হওয়া স্বাভাবিক। তবে তাদের আলোচনার মাধ্যমে সমাধান করা উচিত। তিনি বলেন, চীন বিশ্বব্যাপী শান্তিপূর্ণ, উন্মুক্ত, সমবায় ও সাধারণ উন্নয়নে প্রতিশ্রুতিবদ্ধ বৃহত্তম উন্নয়নশীল দেশ।

তিনি এ-ও বললেন, বিরোধ নিষ্পত্তির জন্য আলোচনা অব্যাহত রাখবেন। রাষ্ট্রপুঞ্জের সাধারণ পরিষদের ৭৫ তম অধিবেশন চলাকালীন পূর্ব-রেকর্ড করা বিবৃতিতে জিনপিং বলেন, ‘শীতল বা উষ্ণ যুদ্ধ জড়িয়ে নয়। সে অভিপ্রায়ও আমাদের নেই। ক্রমাগত আলোচনার মাধ্যমে অন্যের সঙ্গে বিরোধ মিটিয়ে নেওয়ার চেষ্টা করব।’

এমন একটা সময়ে চীনা প্রেসিডেন্ট জাতিসংঘে এই ভাষণ দিলেন, যখন পূর্ব লাদাখের প্রকৃত নিয়ন্ত্রণরেখা বরাবর অঞ্চলে চরম উত্তেজনাপূর্ণ আবহ তৈরি হয়ে রয়েছে। চীনের ক্রমাগত আগ্রাসনের কারণে যুদ্ধপরিস্থিতি তৈরি হয়েছে। সংঘাতের আশঙ্কায় দু-পক্ষই সেনা জড়ো করে রেখেছে। নানা পর্যায়ে একাধিকবার দু-দেশের মধ্যে বৈঠকের পরেও লাদাখে উত্তেজনা কিন্তু কমেনি। আলোচনায় দু-পক্ষই সেনা সরিয়ে নেওয়ার কথা বললেও চীন কিন্তু শেষ পর্যন্ত সেনা সরায়নি। নামমাত্র কয়েকটি জায়গায় সেনা সরালেও দেখা গিয়েছে অন্যত্র বাড়িয়েছে। ভারতকে নিয়ে এহেন তামাশার কারণে চীন কর্তার বিরুদ্ধে সমালোচনার ঝড় বয়ে যাচ্ছে ভারতীয় সংবাদমাধ্যমগুলোতে।

ভাল লাগলে শেয়ার করুন
  • শেয়ার করুন