২১শে ফেব্রুয়ারি, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ, বুধবার,সকাল ৬:৫৪

শিরোনাম
খুলনার ৬ টি আসনে জয়ী নৌকার প্রার্থীরা বেসামরিক প্রশাসনকে সহায়তার লক্ষ্যে নৌবাহিনী মোতায়েন ভোটারদের হুমকি দিচ্ছে এমপি সালাম মুর্শিদীর লোকের, অভিযোগ স্বতন্ত্র প্রার্থীর ভারতীয় ও রাশিয়ার সশস্ত্র বাহিনীর সদস্যদের সাথে নৌপ্রধানের সাক্ষাৎ বীরশ্রেষ্ঠ শহিদ রুহুল আমিন ও বীর বিক্রম শহিদ মহিবুল্লাহর শাহাদত বার্ষিকী পালন রূপসা প্রেসক্লাবের উদ্যোগে বীর ‍মুক্তিযোদ্ধাদের সংবর্ধনা প্রদান নৌবাহিনীর ৬৭১ জন নবীন নাবিকের শিক্ষা সমাপনী কুচকাওয়াজ অনুষ্ঠিত আমরা একবারও বলিনি তফসিল পেছানোর কথা : ইসি আহসান হাবিব শীতকালীন রাষ্ট্রপতি কুচকাওয়াজ পরিদর্শন করলেন নৌবাহিনী প্রধান

গ্রাহকদের নিম্নমানের মিটার ও ভুর্তুকি বিল প্রদান করছে ওয়াসা

প্রকাশিত: অক্টোবর ২০, ২০২৩

  • শেয়ার করুন

খবর বিজ্ঞপ্তির : গত দুই বছরে হাজর হাজার গ্রাহক তাদের পানির মিটার নিয়ে দুর্ভোগে পড়েছেন। খুলনা ওয়াসা ১৫ কোটি টাকায় ব্যয় করে ২০১৮ সালে ক্রয়কৃত নিম্মমানের মিটার, ২০১৯ সাল হতে লাগানো শুরু হলেও অল্প দিনের মধ্যেই তার উপরের অংশ ঘোলা হয়ে যাওয়ায় কতো ইউনিট পানি ব্যবহার হচ্ছে দেখতে না পাওয়ায় ভুল বিল পাচ্ছেন গ্রাহকবৃন্দ।

বর্তমানে ওয়াসার গ্রাহক ৪২ হাজার, তার মধ্যে ২০২১ সাল থেকে ওয়াসা কর্তৃপক্ষ অচল মিটার খুলে নতুন ৪ হাজার মিটার লাগিয়েছেন। আরো লাগাতে হচ্ছে। ঘোলা মিটার বিকল হওয়ায় কম পানি ব্যবহার করলেও গ্রাহকের বিল আসছে বেশি। কারো কারো প্রত্যেক মাসে একই ইউনিট বা একই বিল আসছে। আবার কারো কারো শুন্য ইউনিট।

সে কারনে কখন ও কখন ও গ্রাহকগণকে মাসের পর মাস একই ধরনের বিল দিতে হচ্ছে। যখন ঘোলা মিটার পরিবর্তন করছেন তখন গ্রাহককে বিশাল বড় একটি বিলের কাগজ ধরিয়ে দেওয়ায় তীব্র নিন্দা জানিয়ে বক্তারা আরো বলেন এক দিকে ওয়াসার আধুনিক সেবা হতে গ্রাহকগণ বঞ্চিত হচ্ছেন, অন্যদিকে বিল বেশি হওয়ায় গ্রাহকরা অফিসে ঘুরতে ঘুরতে হাপিয়ে উঠছে। এতে গ্রাহকগণকে চরম দুর্ভোগ পোহতে হচ্ছে। তা ছাড়া সেবার মান বৃদ্ধি না করে পানির মূল্য বৃদ্ধি করা হয়েছে।

শুক্রবার (২০ অক্টোবর) বিকাল ৪টায় বৃহত্তর আমরা খুলনাবাসীর কার্যালয়ে গ্রাহকদের নিম্নমানের মিটার ও ভুর্তুকি বিল প্রদান করার প্রতিবাদে বৃহত্তর আমরা খুলনাবাসীর সভায় ক্ষোভ জানিয়ে বক্তরা এসব কথা বলেন। বক্তরা আরও বলেন
সরকারের কোটি কোটি টাকার অপচয় করে যারা বিদেশ ঘুরে নিম্নানের মিটার এনে গ্রাহকদের পানির লাইনে সংযোজন দিয়েছেন তাদের বিরুদ্ধে সঠিক তদন্ত পুর্বক ব্যবস্থা গ্রহন করতে হবে।

সভায় গত মঙ্গলবার গাজার আল আহলি হাসপাতাল দখলদার ইসরায়েলের ভয়াবহ হামলায় অস্স্থু, আহত, শিশু, নারী ও বেসামরিক ৫০০জনের বেশি মানুষ নিহত হওয়ার তীব্র নিন্দা জানানো হয়। এছাড়া যুদ্ধবন্ধের জন্য বিশ্ব নেতৃবৃন্দের হস্তক্ষেপ দাবি করে ফিলিস্তিনি মুসলমানদের জন্য দোয়া করা হয়।

সংগঠনের সভাপতি ডা. মো. নাসির উদ্দিনের সভাপতিত্বে এবং সাধারন সম্পাদক এস এম মাহাবুবুর রহমান খোকনের পরিচালনায় সভায় বক্তৃতা করেন এবং উপস্থিত ছিলেন, ডা. সৈয়দ মোসাদ্দেক হোসেন বাবলু, ডা. আব্দুস সালাম, জি এম মহিউদ্দিন, এড. কাজি আমিনুল ইসলাম মিঠু, শেখ মোহাম্মাদ আলি, এম এ জলিল, মো. কামরুল ইসলাম ভুট্রো, কাওসারী জাহান মঞ্জু, নাজমুল তারেক তুষার, সাংগাঠনিক সম্পাদক মো. শাকিল আহমেদ রাজা, আ. রাজ্জাক, শেখ শহিদুল ইসলাম, মো. সাইফুল্লাহ বাবু, মো. আলাউদ্দিন, নাফিসা ইসলাম, মো. আবু বক্কার, মো. আজমল হোসেন প্রমুখ।

ভাল লাগলে শেয়ার করুন
  • শেয়ার করুন