১৫ই জুন, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ, শনিবার,ভোর ৫:০১

শিরোনাম
কয়রায় মহসিন রেজা, ডুমুরিয়ায় এজাজ ও পাইকগাছায় আনন্দ চেয়ারম্যান নির্বাচিত খুলনায় নির্বাচন পরবর্তী সহিংসতা বিষয়ে সংবাদ সম্মেলন ফেরদৌস আহম্মেদ’র প্রধানমন্ত্রী গরিব-দু:খী মানুষের ভাগ্যের উন্নয়ন করে চলেছেন-কেসিসি মেয়র খুলনায় তিনদফা দাবিতে ৩ বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষক কর্মচারীদের কর্মবিরতি পালন দীর্ঘ অপেক্ষার পর রেল নেটওয়ার্কে যুক্ত হলো মোংলা বন্দর সরকার সবসময় দুর্যোগে ক্ষতিগ্রস্থ মানুষের পাশে থাকবে-ভূমিমন্ত্রী খুলনায় নতুন ভবনে নতুন আঙ্গিকে গণহত্যা জাদুঘর বিয়ের প্রলোভন দেখিয়ে শারিরিক সম্পর্ক; মোংলা থানার ওসি (তদন্ত) ক্লোজড সুন্দরবনে আগুন, কারণ বের করতে আরও ৭ কার্যদিবস সময় নিলো তদন্ত কমিটি

গুলিবিদ্ধ ইমরান খান, নিহত ১

প্রকাশিত: নভেম্বর ৩, ২০২২

  • শেয়ার করুন

পাকিস্তানের ক্ষমতাচ্যুত প্রধানমন্ত্রী ও পাকিস্তান তেহরিক-ই-ইনসাফের (পিটিআই) চেয়ারম্যান ইমরান খানের ডাকা চলমান লংমার্চের ওপর গুলি হামলার ঘটনা ঘটেছে। ইমরান খানকে বহনকারী গাড়ির ওপর অতর্কিতে গুলি চালায় এক অস্ত্রধারী। এতে ইমরান খান গুলিবিদ্ধ হয়েছেন। এছাড়া দলের আরও কয়েকজন আহত হয়েছেন বলে প্রতিবেদনে বলা হয়েছে।
পিটিআই নেতা ফয়সাল জাভেদ বলেন, হামলায় দলের এক কর্মী নিহত হয়েছেন। এ ছাড়া দলটির পক্ষ থেকে বলা হয়েছে, ইমরান খানকে হত্যার উদ্দেশেই এই হামলা চালানো হয়েছে।

জানা গেছে ইমরান খানকে গুলি করা ওই ব্যক্তি গ্রেপ্তার হয়েছেন। বৃহস্পতিবার পাঞ্জাবের ওয়াজিরাবাদ শহরে ইমরানকে লক্ষ্য করে গুলি ছোড়ার অল্প সময়ের মধ্যেই তাকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে।

ওই ব্যক্তির নাম-পরিচয় এখনও জানা যায়নি, তবে সংবাদমাধ্যমে বন্দুক উঁচিয়ে ধরা অবস্থায় তার একটি অস্পষ্ট ছবি প্রকাশিত হয়েছে।

ক্ষমতাসীন জোট সরকারের পদত্যাগ ও আগাম নির্বাচনের দাবিতে গত ২৮ অক্টোবর পাকিস্তানের পাঞ্জাব প্রদেশের রাজধানী লাহোরের লিবার্টি চক থেকে লংমার্চ শুরু করে ইমরান খানের রাজনৈতিক দল পাকিস্তান তেহরিক-ই ইনাসাফ (পিটিআই)। ৪ নভেম্বর ইসলামাবাদের রাওয়াত এলাকায় শেষ হওয়ার কথা ছিল এই কর্মসূচির। দলের চেয়ারম্যান হিসেবে লংমার্চের শুরু থেকেই গাড়ি বহরের সামনে ছিলেন ইমরান।

লংমার্চের অংশ হিসেবে আজ বৃহস্পতিবার ওয়াজিরাবাদ শহরে সমাবেশ করছিলেন ইমরান খান। সেই সময়েই গ্রেপ্তার ওই ব্যক্তি তার পা লক্ষ্য করে কয়েক রাউন্ড গুলি করে। পাকিস্তানের বিভিন্ন সংবাদমাধ্যমের তথ্য অনুযায়ী, হামলার সময় প্রাণঘাতী বন্দুক একে ৪৭ অ্যাসল্ট রাইফেল ব্যবহার করেছিল হামলাকারী।

এছাড়া হামলাকারীর এলোপাতাড়ি গুলিতে পিটিআইয়ের একজন কর্মী নিহত হয়েছেন, আহত হয়েছেন আরও বেশ কয়েকজন।

ঘটনার পরপরই পিটিআইয়ের কর্মী-সমর্থকরা হামলাকারীকে আটক করে পুলিশের কাছে সোপর্দ করেন। জিও টিভির জানিয়েছে, হামলার আগে যেখানে অবস্থান নিয়েছিলেন হামলাকারী ওই ব্যক্তি, সেই স্থানটিতে তিনি একাই ছিলেন।

ভাল লাগলে শেয়ার করুন
  • শেয়ার করুন