২৮শে মে, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ, মঙ্গলবার,বিকাল ৩:৪৪

খুলনায় এক ওসি’সহ একদিনে সর্বোচ্চ ৪৯ জনের করোনা শনাক্ত

প্রকাশিত: জুন ১৭, ২০২০

  • শেয়ার করুন

গত ২৪ ঘন্টায় খুলনা মেডিকেল কলেজের (খুমেক) পিসিআর ল্যাবে সোনাডাঙ্গা মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তাসহ ৪৯ জনের করোনা শনাক্ত হয়েছে। যার মধ্যে খুলনা মহানগরেই ৩১ জন। বাকি ১৮ জন বিভিন্ন থানার। এই নিয়ে খুলনায় মোট করোনা রোগীর সংখ্যা দাঁড়ালো ৪৯৯ জন।

মঙ্গলবার (১৬ জুন) সন্ধ্যায় খুলনা মেডিকেল কলেজের (খুমেক) পিসিআর ল্যাব ও খুলনা সিভিল সার্জনের দপ্তর থেকে এ তথ্য জানা গেছে।

খুমেকের সিভিল সার্জন কার্যালয়ের মেডিকেল অফিসার (রোগ নিয়ন্ত্রণ) ডা. শেখ সাদিয়া মনোয়ারা জানান, মঙ্গলবার পিসিআর ল্যাবে ১৮৯ টি নমুনা পরীক্ষা করা হয়েছিল। এতে খুলনা নমুনা ছিল ১৮৩ টি। মোট পজিটিভ রিপোর্ট এসেছে ৪৯ টি। যার মধ্যে খুলনা মহানগরীর ৩১ জন,বাকিরা রূপসা উপজেলার ১০ জন, দাকোপের ৩ জন, ডুমুরিয়ার ২ জন, তেরখাদার ২ ও পাইকগাছা ১ জন রয়েছেন।

খুলনায় শনাক্তদের মধ্যে রয়েছেনঃ সোনাডাঙ্গা মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (৪৫), খুলনা মেট্রোপলিটন পুলিশের ৩৮ বছরের একজন, কেএমপির দৌলতপুর থানার ৪৮ বছরের একজন,, রূপসা উপজেলার নয়াহাটি এলাকার ৩৫ বছরের যুবক, দাকোপের বাজুয়া চুনকুড়ি এলাকার ২৩ বছরের তরুণী, ডুমুরিয়া উপজেলার ৫২ বছরের এক ব্যক্তি, নগরীর ডাকবাংলা এলাকার ফিরোজ ম্যানশনের ৪৮ বছরের এক ব্যক্তি, শিরোমণি এলাকার ৬৯ বছরের এক বৃদ্ধ, তেরখাদা উপজেলার ৫০ বছরের একাউন্ট অফিসার, একই অফিসের ৪০ বছরের অডিটর, দাকোপ উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের ৪০ বছরের মেডিকেল টেকনোলজিস্ট (ইপিআই), দাকোপের সাহেবিপাড়াবাদ এলাকার ২৬ বছরের তরুণী, নগরীর সাউথ সেন্ট্রাল রোডের ৬৫ বছরের এক বৃদ্ধা ও ৩ বছরের এক মেয়ে, শশিভূষণ রোডের ৩৭ বছরের এক ব্যক্তি, ৩৭/৪ দিলখোলা রোডের ৫০ বছরের এক নারী, ডুমুরিয়ার কালিকাপুরের ৫০ বছরের এক ব্যক্তি, নগরীর এসআই নীরের ৩৪ বছরের এক ব্যক্তি ও আরেকজন যার বয়স উল্লেখ নেই, নগরীর বেণী বাবু রোডের ৪৮ বছরের এক ব্যক্তি, বয়রা মধ্যপাড়ার ২৭ বছরের যুবক, রূপসার আইচগাতি এলাকার ৭৫ বছরের এক বৃদ্ধ, ৬০ বছরের এক বৃদ্ধা, ৪৬ বছরের এক নারী, আরেক ব্যক্তির বয়স উল্লেখ নেই, দেয়াড়া এলাকার ৪৫ বছরের এক ব্যক্তি, ২২ বছরের এক তরুণী, ২৮ বছরের এক যুবক, ৪৩ বছরের এক ব্যক্তি, ২২ বছরের এক তরুণ, কেডি ঘোষ রোডের ২০ বছরের এক তরুণী, খুলনা মেডিকেল কলেজের ৩২ বছরের এক ব্যক্তি, ৪০ বছরের এক নারী ও ৫২ বছরের এক নারী, আবু নাসের হাসপাতালের ৩৯ বছরের এক ব্যক্তি, রূপসার শতদল ক্লিনিকের ৫৮ বছরের এক ব্যক্তি, বিএনএস উপশম হাসপাতালের ৩২ বছরের এক ব্যক্তি ও ৪০ বছরের এক ব্যক্তি, বড়বাজার দাসপাড়া এলাকার ৫০ বছরের এক ব্যক্তি, সোনাডাঙ্গার ৫০নং রোডের ৪৫ বছরের এক নারী, খালিশপুর নেভী গেটের ৩৩ বছরের এক নারী ও ৩৪ বছরের এক ব্যক্তি, হোটেল অ্যাম্বাসেডরে থাকা ৩৬ বছরের এক ব্যক্তি, সোনাডাঙ্গার ৬৬ ও ৬৯ বছরের দুই বৃদ্ধা, নগরীর শেখপাড়া এলাকার ৭০ বছরের এক বৃদ্ধা, দোবা এলাকার ৫০ বছরের এক ব্যক্তি, নগরীর জোড়াগেট এলাকার ৫২ বছরের এক ব্যক্তি ও পাইকগাছার রাড়ুলী এলাকার ৩২ বছরের এক ব্যক্তি।

খুলনা সিভিল সার্জনের কার্যালয় সূত্রে জানা গেছে, একদিনে শনাক্ত হওয়ার দিক থেকে খুলনায় এটিই সর্বোচ্চ। এর আগে গত শনিবার একদিনে সর্বোচ্চ ৪৫ জনের করোনা শনাক্ত হয়, গত সোমবারও খুলনায় ৪২ জনের করোনা শনাক্ত হয়েছে। মঙ্গলবার ৪৯ জন শনাক্ত হওয়ার মধ্য দিয়ে একদিনে রেকর্ড সংখ্যক কোভিড-১৯ রোগী শনাক্ত হলো। এনিয়ে খুলনা জেলা ও মহানগরীতে এখন পর্যন্ত ৪৯৯ জনের করোনাভাইরাস শনাক্ত হয়েছে।

ভাল লাগলে শেয়ার করুন
  • শেয়ার করুন