২১শে ফেব্রুয়ারি, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ, বুধবার,সকাল ৭:২৯

শিরোনাম
খুলনার ৬ টি আসনে জয়ী নৌকার প্রার্থীরা বেসামরিক প্রশাসনকে সহায়তার লক্ষ্যে নৌবাহিনী মোতায়েন ভোটারদের হুমকি দিচ্ছে এমপি সালাম মুর্শিদীর লোকের, অভিযোগ স্বতন্ত্র প্রার্থীর ভারতীয় ও রাশিয়ার সশস্ত্র বাহিনীর সদস্যদের সাথে নৌপ্রধানের সাক্ষাৎ বীরশ্রেষ্ঠ শহিদ রুহুল আমিন ও বীর বিক্রম শহিদ মহিবুল্লাহর শাহাদত বার্ষিকী পালন রূপসা প্রেসক্লাবের উদ্যোগে বীর ‍মুক্তিযোদ্ধাদের সংবর্ধনা প্রদান নৌবাহিনীর ৬৭১ জন নবীন নাবিকের শিক্ষা সমাপনী কুচকাওয়াজ অনুষ্ঠিত আমরা একবারও বলিনি তফসিল পেছানোর কথা : ইসি আহসান হাবিব শীতকালীন রাষ্ট্রপতি কুচকাওয়াজ পরিদর্শন করলেন নৌবাহিনী প্রধান

উপমন্ত্রী হাবিবুন নাহারের মনোনয়ন সংগ্রহ

প্রকাশিত: নভেম্বর ১৯, ২০২৩

  • শেয়ার করুন

মোংলা প্রতিনিধি : বাগেরহাট -৩ (মোংলা-রামপাল) সংসদীয় আসনে আওয়ামী লীগের মনোনয়ন নিয়েছেন পরিবেশ, বন ও জলবায়ু পরিবর্তন মন্ত্রণালয়ের উপমন্ত্রী বেগম হাবিবুন নাহার। তার পক্ষে রবিবার (১৯ নভেম্বর) বেলা ১১টায় আওয়ামীলীগ কার্যালয় থেকে দফতর সম্পাদক বিপ্লব বড়ুয়ার কাছ থেকে মনোনয়ন সংগ্রহ করেন দলের সাংগঠনিক সম্পাদক এস এম কামাল হোসেন।

এসময় তার সাথে ছিলেন, উপমন্ত্রীর ব্যক্তিগত সহকারী মোঃ রেদওয়ান মারুফ, মোংলা উপজেলা আওয়ামী লীগের তথ্য ও গবেষণা বিষয়ক সম্পাদক সাখাওয়াত হোসেন মিলন, যুব ও ক্রীড়া বিষয়ক সম্পাদক দিলিপ কুমার মন্ডল, থানামন্ডি থানা ছাত্রলীগের সাবেক সভাপতি সুজা উদ্দিন তুহিন, ঢাকা মহানগর দক্ষিণ স্বেচ্ছাসেবকলীগের সাবেক নেতা পিন্টু মজুমদারসহ মোংলা রামপালের নেতা কর্মিরা।

উপমন্ত্রী বেগম হাবিবুন নাহার বাগেরহাট-৩ আসনে টানা তিনবারের সংসদ সদস্য। এর আগে তার পতি খুলনা সিটি করপোরেশন মেয়র তালুকদার আব্দুল খালেক ১৯৯১, ১৯৯৬, ২০০১ ও ২০১৪ সালে এখান থেকে সংসদ সদস্য হন। সামলেছেন ত্রান ও দূর্যোগ মন্ত্রনালয়ের দায়িত্বও। এরপরে তিনি খুলনা সিটি মেয়র নির্বাচিত হন।

২০১৮ সালে সংসদ নির্বাচিত হয়ে বেগম হাবিবুন নাহার দায়িত্ব পান সরকারের পরিবেশ, বন ও জলবায়ু পরিবর্তন মন্ত্রণালয়ের উপমন্ত্রীর। এসময় গোটা সুন্দরবনের অবকাঠামোগত দৃশ্যমান উন্নয়ন ছাড়াও তার নির্বাচনী এলাকায় মোংলা ও রামপালে সে এবং তার পতি তালুকদার আব্দুল খালেক যুগান্তকারী উন্নয়ন করে প্রধানমন্ত্রীর আস্থাভজন হন। এ কারণে এলাকার ভোটাররা হাবিবুন নাহারকে আবারও নৌকার মাঝি হিসেবে দেখতে চান।

বেগম হাবিবুন নাহার এমপি জানান, সে এবং তার পতি তালুকদার আব্দুল খালেক মোংলা রামপালের মানুষের ভাগ্যের পরিবর্তন ছাড়া কখনও কিছু ভাবেননি। সে জন্য তাদের জীবনের অর্ধেকেরও বেশি সময় ব্যয় করেছেন তাদের এলাকার মানুষের পেছনে। এই এলাকায় বিএনপি জামায়াতের সময় কোন উন্নয়ন হয়নি উল্লেখ করে তিনি আরও বলেন, সে সময় এই এলাকায় সন্ত্রাস ও লুটের রাজনীতি চলেছে। সংখ্যালঘুদের ওপর নির্মম নির্যাতন চলেছে। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ক্ষমতায় এসে এই এলাকায় ব্যপক উন্নয়নের বরাদ্দ দিয়েছেন, সেই উন্নয়ন করে এলাকার দৃশ্যপট পাল্টে দিয়েছেন তারা।

ভাল লাগলে শেয়ার করুন
  • শেয়ার করুন