আজ বুধবার, ১৬ই জানুয়ারি, ২০১৯ ইং, ৩রা মাঘ, ১৪২৫ বঙ্গাব্দ

বাগেরহাটে ইউপি চেয়ারম্যানের হাতে মাদ্রসা শিক্ষক লাঞ্চিত

আরিফুর রহমান,বাগেরহাট প্রতিনিধিঃ বাগেরহাটের শরণখোলা উপজেলার খোন্তাকাটা মদিনাতুল উলুম দাখিল মাদ্রাসার শিক্ষক আলী আহমেদকে এবার মারপিট করেছে স্থানীয় ইউপি চেয়ারম্যান জাকির হোসেন খান মহিউদ্দিন। বৃহস্পতিবার সকালে উপজেলার খোন্তাকাটা এলাকায় মাদ্রাসার প্রধান ফটকের সামনে এ ঘটনা ঘটে। শিক্ষক আলী আহমেদ মোড়েলগঞ্জ উপজেলার খাওলিয়া ইউনিয়নের আমতলী গ্রামের মৃত হরমুজ আলী গাজীর ছেলে। কিছুদিন আগে সে গোয়েন্দা পুলিশে’র হাতে আটক হয়েছিল। শিক্ষক আলী আহমেদ বলেন, প্রতিদিনের মতবৃহস্পতিবার সকালে বাড়ি থেকে মাদ্রাসায় আসি। বেলা সাড়ে ১১ টার দিকে মাদ্রাসার গেটের সামনে দাড়ালে চেয়ারম্যান মহিউদ্দিন ও তার ভাগ্নে মেহেদী সাথে এসে আমাকে বলে তুই ওপার থেকে এপারে এসে কিভাবে চাকুরী করিস? এ বলেই আমাকে চরথাপ্পর ও কিল ঘুষি মারে। এ সময় স্থানীয় লোকজন এসে জড়ো হলে চেয়ারম্যান গালাগালি দিয়ে ঘটনাস্থল ত্যাগ করেন। পরে স্থানীয় লোকজন আমাকে শরণখোলা উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে ভর্তি করে। সেখানে প্রাথমিক চিকিৎসা শেষে কানে বড় ধরণের সমস্যা হয়েছে বলে জানান চিকিৎসক এবং খুলনা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে স্থানান্তর করেন। শিক্ষক আলী আহমেদ আরও বলেন, কিছুদিন আগে পার্শ্ববর্তী মোরেলগঞ্জ উপজেলার আমতলি গ্রামে আমার নিজের বাড়ি। একই এলাকার বাদশা নামে এক লোকের সাথে আমাদের জমিজমা নিয়ে বিরোধ রয়েছে। বাদশা ওই চেয়ারম্যানের কাছে নালিশ জানালে চেয়ারম্যান আমাকে অহেতুকভাবে এ মারধর করেন। শরণখোলা উপজেলা স্বাস্থ্য কর্মকর্তা অসিম কুমার সমাদ্দার বলেন, মাদ্রাসা শিক্ষক আলী আহমেদ আহত অবস্থায় উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে এসেছিলেন। প্রাথমিক চিকিৎসা শেষে তাকে খুলনা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে। মাদ্রাসা ব্যবস্থাপনা কমিটির সভাপতি হাসানুজ্জামান জমাদ্দার বলেন, একজন শিক্ষককে প্রকাশ্যে মারধর করার তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ জানাই। আমি উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তাকে বিষয়টি অবহিত করেছি। নিয়ম অনুযায়ী ব্যবস্থা গ্রহন করা হবে।

শেয়ার করুন
  • 142
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
    142
    Shares

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

     এই বিষয়ের আরো সংবাদ

ফেসবুকে দৈনিক তথ্য