২৯শে মার্চ, ২০২৩ খ্রিস্টাব্দ, বুধবার,রাত ৮:৫০

পাইকগাছায় ভাইপো কর্তৃক ষাটোর্ধ চাচাকে মারপিঠের অভিযোগ!

প্রকাশিত: জুলাই ১১, ২০২০

  • শেয়ার করুন

এ কে আজাদ, পাইকগাছ: তুচ্ছ ঘটনায় এবার খুলনার পাইকগাছায় ষাটোর্ধ বৃদ্ধ আপন চাচাকে মারপিঠ করে আহত করার ঘটনা ঘটেছে। আহতাবস্থায় চাচা নেছার আলীকে কপিলমুনি হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। তার একটি হাতে আঘাতপ্রাপ্ত হয়েছে। এ ঘটনায় মামলার প্রস্তুতি নিয়েছে ভুক্তভোগী পরিবার।

জানাগেছে, উপজেলার কপিলমুনি ইউনিয়নের নাছিরপুর মৌজার জেএল নং ১৬ দাগ নং ৪৪৮ জমির পরিমান ৬৩ শতক জমিতে চাচা নেছার আলী অংশে ২১ শতক জমিতে ভোগ দখল করেন। অন্য দু ভাই নিয়ামুদ্দিন ও নিজামুদ্দিন প্রত্যেকে ২১ শতক করে জমি প্রাপ্ত হন। কিন্তু নিজামুদ্দিনের মৃত্যুর পর তার পুত্র সামাদ পার্শ্বে অবস্থিত রাস্তার খাস জায়গা সহ চাচা নেছার আলীর মোট জমি পুরণ করে দেয়ার চেষ্টা করে। যা মেনে নেয়নি বয়োবৃদ্ধ চাচা নেছার আলী। মুলত এই নিয়ে ঘটনার সুত্রপাত। এমতাবস্থায় শুক্রবার ভাইপো সামাদ বিশ্বাস সম্পুর্ন গায়ের জোরে চাচা নেছার আলীর বসতবাড়িতে ঢুকে পড়ে এবং বিভিন্ন প্রাজাতের গাছ কাটতে থাকে। ঘটনা দেখে বৃদ্ধ চাচা নেছার আলী বাঁধা দিতে গেলে তাকে ধাক্কা দিয়ে ফেলে দেয় ও মারপিট করে আহত করে ভাইপো সামাদ। এবং অকত্য ভাষায় গালিগলাজ সহ হুমকি ধামকি প্রদান করে। আহত অবস্থায় পরিবারের লোকজন তাকে উদ্ধার করে কপিলমুনি হাসপাতালে ভর্তি করেছে। তার একটি হাতে মারাত্নক আঘাতপ্রাপ্ত হয়েছে বলে জানান তারা। বৃদ্ধ নেছার আলী বলেন, আমার হাতে লাগানো মিষ্টি কুমড়া, চাল কুমড়া, লাউ ও পুইশাক গাছ কেটে নষ্ট করে দিয়েছে সামাদ। বৃদ্ধ নেছার আলী আরোও জানান, সামাদ এলাকায় গায়ের জোরে বিভিন্ন অপরাধ মুলক কর্মকান্ড করে বেড়ায়। তার বিরুদ্ধে অনেক ভুক্তভোগী মানুষ থানায় মামলাও করেছে। এ ঘটনায় বৃদ্ধ নেছার আলীর পক্ষে ঘটনার সুষ্ট বিচারের আশায় পাইকগাছা থানায় অভিযোগ করা হয়েছে বলে জানান ভুক্তভোগী পরিবার।

ভাল লাগলে শেয়ার করুন
  • শেয়ার করুন