আজ মঙ্গলবার, ২২শে অক্টোবর, ২০১৯ ইং, ৭ই কার্তিক, ১৪২৬ বঙ্গাব্দ

খুলনার ব্যবসায়ীকে নারায়ণগঞ্জে নিয়ে হত্যার অভিযোগ

নগরীর মিয়াপাড়ার বাসিন্দা মোঃ এমদাদুল হক ওরফে লিপনকে পরিকল্পিতভাবে হত্যা করা হয়েছে বলে অভিযোগ পরিবারের। এ ঘটনায় নারায়ণগঞ্জ জেলার রূপগঞ্জ থানায় একটি হত্যা মামলা দায়ের করা হয়েছে। মামলার আসামীরা হচ্ছেন এহতেশাম কবীর ওরফে জুন, মঞ্জুর মোর্শেদ এবং ইঞ্জিনিয়ার মাসুম। এরা সকলেই লিপনের বন্ধু। তারা খুলনা ও দৌলতপুরের বাসিন্দা হলেও ঢাকায় ব্যবসা ও চাকুরির সাথে জড়িত। পুলিশ এখনও অবধি আসামীদের কাউকে আটক করতে পারেনি।
জানা যায়, মিয়াপাড়ার মৃত গাজী দেলোয়ার হোসেনের ছেলে লিপন দীর্ঘদিন ধরে ঢাকায় বসবাস করতেন। সম্প্রতি তিনি চাকুরি ছেড়ে ব্যবসা শুরু করেন। গত ১৩ সেপ্টেম্বর তিনি তার বন্ধুদের সাথে প্রাইভেটকারে করে ঘুরতে বের হন। তারা ঢাকার বাড্ডা এলাকা থেকে রূপগঞ্জ থানার ভোলানাথপুর সাকিনস্থ পূর্বাচল উপশহরের নীলা মার্কেটে যায়। এক পর্যায়ে পূর্ব শক্রুতার জের ধরে তার বন্ধুরা পরিকল্পিতভাবে হত্যার উদ্দেশ্যে মেরে প্রাইভেটকারসহ রূপগঞ্জ এলাকার একটি লেকে ফেলে দেয়। পরবর্র্তীতে তাকে উদ্ধার করে হাসপাতালে নেওয়া হলে চিকিৎসকরা তার মৃত্যু নিশ্চিত করেন। লেকে প্রাইভেটকারটি পড়ে যাওয়ার খবরটি আসামীদের মধ্যে একজন ফোন করে লিপনের বড় ভাইকে খবরটি দিয়েছিল। এ ঘটনার লিপনের লাশ খুলনার টুটপাড়া কবরস্থানে এনে দাফন করা হয়। ব্যক্তি জীবনে লিপন নিঃসন্তান ছিলেন।
এদিকে লাশ দাফনের পর পারিবারিকভাবে বিষয়টি নিয়ে সন্দেহ হওয়ার পর লিপনের বড় ভাই এনামুল হক বাদী হয়ে নারায়ণগঞ্জ জেলার রূপগঞ্জে গত ১৮ সেপ্টেম্বর একটি হত্যা মামলা দায়ের করেন (নম্বর ৪৯)।

ভাল লাগলে শেয়ার করুন

মন্তব্য করুন

     এই বিষয়ের আরো সংবাদ