১৬ই জুন, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ, রবিবার,বিকাল ৩:০৯

শিরোনাম
কয়রায় মহসিন রেজা, ডুমুরিয়ায় এজাজ ও পাইকগাছায় আনন্দ চেয়ারম্যান নির্বাচিত খুলনায় নির্বাচন পরবর্তী সহিংসতা বিষয়ে সংবাদ সম্মেলন ফেরদৌস আহম্মেদ’র প্রধানমন্ত্রী গরিব-দু:খী মানুষের ভাগ্যের উন্নয়ন করে চলেছেন-কেসিসি মেয়র খুলনায় তিনদফা দাবিতে ৩ বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষক কর্মচারীদের কর্মবিরতি পালন দীর্ঘ অপেক্ষার পর রেল নেটওয়ার্কে যুক্ত হলো মোংলা বন্দর সরকার সবসময় দুর্যোগে ক্ষতিগ্রস্থ মানুষের পাশে থাকবে-ভূমিমন্ত্রী খুলনায় নতুন ভবনে নতুন আঙ্গিকে গণহত্যা জাদুঘর বিয়ের প্রলোভন দেখিয়ে শারিরিক সম্পর্ক; মোংলা থানার ওসি (তদন্ত) ক্লোজড সুন্দরবনে আগুন, কারণ বের করতে আরও ৭ কার্যদিবস সময় নিলো তদন্ত কমিটি

কপিলমুনিতে গ্রামবাংলার ঐতিহ্য ঢালি খেলা অনুষ্ঠিত

প্রকাশিত: এপ্রিল ১৭, ২০২৪

  • শেয়ার করুন

কপিলমুনি প্রতিনিধি:

আবহামান কাল থেকে লালিত হয়ে আসছে গ্রামবাংলার ঐতিহ্যবাহী ঢালি খেলা (লাঠি খেলা)। খেলাটি আজ কালের আবর্তে হারিয়ে যাচ্ছে। হারনো ঐতিহ্য ফিরিয়ে আনতে পাইকগাছা উপজেলার কপিলমুনিতে বাসন্তী পূজা উপলক্ষে এই ঢালী খেলা অনুষ্ঠিত হয়।
সলুয়া-কাজিমুছা বাসন্তী পূজা কমিটির আয়োজনে বুধবার বিকেল সাড়ে ৩টায় খেলায় প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত থেকে খেলার উদ্বোধন করেন, পাইকগাছা-কয়রার সংসদ সদস্য মোঃরশিদুজ্জামান। অনুষ্ঠানে আরো উপস্থিত ছিলেন, উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক শেখ কামরুল হাসান টিপু, যুগ্ম-সাধারণ সম্পাদক আনন্দ মোহন বিশ্বাস, কপিলমুনি ইউপি চেয়ারম্যান কওছার আলী জোয়ার্দ্দার, কপিলমুনি ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের ভারপ্রাপ্ত সভাপতি সরদার বজলুর রহমান, সাধারণ সম্পাদক শেখ ইকবাল হোসেন খোকন, প্রকাশ চন্দ্র দাশ, বুলবুল আহমেদ, কপিলমুনি সিটি প্রেসক্লাবের সাধারণ সম্পাদক রফিকুল ইসলাম খান, অনিতা রানী মন্ডল, সুকুমার ঢালী, প্রভাষক আঃ ওহাব বাবলু, মৃনাল কান্তি বাছাড়, আমিনুল ইসলাম লিটু, ফরহাদ হোসেন, আজিজুল ইসলাম খান, আঃ খালেক গাজী, শেফালী মন্ডল, বিশ্বজিত দাশ, সঞ্জয় হাজরা, লাভলু গোলদার, জিএম হাবিবুর রহমান প্রমুখ।
খেলায় খরিয়াটি ও বান্দিকাটী দূটি দলের নতুন ও পূরাতন মিলে ১৬ জন খেলোয়ার অংশ গ্রহণ করেন। খেলায় অতীতের মতো জৌলুস না থাকলেও কাসি ও ঢোলের বাজনা শুনে খেলা দেখতে বিভিন্ন শ্রেণি পেশার ঢালী প্রেমিক নারী পুরুষ ছুটে আসেন।
খেলা দর্শক আব্দুর গফুর গাজী জানান, ঢালী খেলা আমার একটি প্রিয় খেলা। ছোট বেলায় এ গ্রামে ঢালী খেলার ব্যাপক প্রচলন ছিলো। গ্রামের মানুষ খেলা দেখে আনন্দ উপভোগ করতো।
খেলার উদ্যোক্তা বাসন্তী পূজা উদযাপন কমিটির সাধারণ সম্পাদক সঞ্জয় কুমার হাজরা জানান, হারানো ঐতিহ্য ধরে রাখতে আমি গ্রামে নতুন করে একটি ঢালী খেলার দল গঠন করেছি। এ সংবাদ এলাকায় প্রচার হওয়ায় বিভিন্ন এলাকা থেকে খেলের বায়না আসছে। আশাকরি খেলাটি এলাকায় পুনরায় জীবিত হবে।

ভাল লাগলে শেয়ার করুন
  • শেয়ার করুন