আজ বৃহস্পতিবার, ২১শে নভেম্বর, ২০১৯ ইং, ৭ই অগ্রহায়ণ, ১৪২৬ বঙ্গাব্দ

কচুয়া প্রেসক্লাবের সভাপতিকে হত্যার চেষ্টা, আটক ১

মাসুম হাওলাদার: কচুয়া উপজেলা প্রেসক্লাবের সভাপতি ও বাগেরহাট নিউজ ২৪ ডট কমের সম্পাদক খোন্দকার নিয়াজ ইকবালকে গতকাল রাতে হত্যার উদ্দেশ্য দুর্বৃত্তরা ছুরি দিয়ে আঘাত করেছে।
বাগেরহাটের কচুয়া উপজেলা চুরি করার উদ্দেশ্যে ঘরে ঢুকে কচুয়া উপজেলা প্রেসক্লাবের সভাপতি খোন্দকার নিয়াজ ইকবালকে ছুড়িকাঘাত করেছে মোঃ মুসফিকুর রহমান রাফি (১৭) নামের এক কিশোর। বুধবার রাতে কচুয়ার সদরে নিয়াজ ইকবালের নিজ বাসায় এ ঘটনা ঘটে। এ ঘটনায় দুইজনকে আসামী করে বৃহস্পতিবার দুপুরে কচুয়া থানায় মামলা দায়ের করেছেন আহত নিয়াজ ইকবাল। মোঃ মুসফিকুর রহমান কচুয়া মধ্যপাড়া এলাকার মোঃ মশিউর রহমানের ছেলে। অন্য আসামী মোঃ আল আমিন (১৮) উপজেলার গিমটাকাঠি এলাকার বাসিন্দা।
মামলা সূত্রে জানা যায়, বুধবার রাতে কচুয়া প্রেসক্লাব থেকে দাপ্তরিক কাজ থেকে বাড়িতে ফিরি। পূর্ব থেকে আমার শোবার ঘরের খাটের নিচে থাকা মোঃ মুসফিকুর রহমান ও আল আমিন আমার উপর হামলা করে। মোঃ মুসফিকুর রহমানের হাতে থাকা ছুড়ি দিয়ে আমার বুকে আঘাত করে। আমি বাম হাত দিয়ে ঠেকালে আমার হাত কেটে যায়। ডাক চিৎকারে স্থানীয়রা এসে মোঃ মুসফিকুর রহমান রাফিকে আটক করে পুলিশে হস্তান্তর করে।

কচুয়া থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মোঃ শফিকুর রহমান বলেন, কচুয়া প্রেসক্লাবের সভাপতি নিয়াজ ইকবালকে ছুড়িকাঘাতকারী মোঃ মুসফিকুর রহমান রাফিকে স্থানীয়রা আটকে রাখে। পরে আমরা নিয়াজ ইকবালের বাসায় গিয়ে মোঃ মুসফিকুর রহমানকে গ্রেফতার করি। এসময় তার কাছ থেকে একটি ছুড়ি ও ২০ হাজার টাকা উদ্ধার করা হয়। এ ঘটনায় আহত সাংবাদিক নিয়াজ ইকবাল বাদী হয়ে দুইজনকে আসামীকে করে মামলা করেছেন। অন্য আসামী আল আমিনকে আটকের জন্য পুলিশ চেষ্টা চালাচ্ছে। আটক মোঃ মুসফিকুর রহমানকে আদালতে সোপর্দের প্রস্তুতি চলছে।

ভাল লাগলে শেয়ার করুন

মন্তব্য করুন

     এই বিষয়ের আরো সংবাদ