২২শে এপ্রিল, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ, সোমবার,সকাল ৬:৩৬

ওড়িশা ও পশ্চিমবঙ্গ উপকূল জারী হল লাল সতর্কতা, সকাল ১১ টার মধ্যেই ল্যাণ্ডফল হবে ইয়াসের

প্রকাশিত: মে ২৬, ২০২১

  • শেয়ার করুন

প্রবল গতি নিয়ে স্থলভাগের দিকে ধেয়ে আসছে ঘূর্ণিঝড় ইয়াস (cyclone yaas)। কলকাতায় আমফানের মত প্রভাব না পড়লেও, ঘণ্টায় ৬৫ থেকে ৭৫ কিলোমিটার বা সর্বোচ্চ ৮৫ কিমি বেগে ঝড়ো হাওয়া বওয়ার পূর্বাভাস দিয়েছে আবহাওয়া দফতর। তবে এই সংকটের দিনে ওড়িশা ও পশ্চিমবঙ্গে উপকূল এলাকায় লাল সতর্কতা জারি করেছে হাওয়া অফিস।

ল্যান্ডফলের আগেই নিজের রূপ দেখাতে শুরু করেছে ঘূর্ণিঝড় ইয়াস। দুপুরের দিকে ওড়িশায় প্রবেশ করার পূর্বাভাস থাকলেও, তাঁর আগেই সকাল থেকেই ভদ্রক জেলার ধামড়ায় শুরু হয়েছে তাণ্ডবনৃত্য। সমুদ্রের জলচ্ছাস সীমানা পেরিয়ে এলাকায় ঢুকে পড়ছে। বেশকিছু এলাকা ইতিমধ্যেই জলমগ্ন হয়ে পড়েছে।

ঘণ্টায় প্রায় ১২ কিলোমিটার গতিতে দ্রুত ওড়িশার দিকে এগিয়ে যাচ্ছে ঘূর্ণিঝড় ইয়াস। আর কিছুক্ষণের মধ্যেই সকাল ১০ থেকে ১১টার মধ্যে ঘন্টায় ১৩০-১৪০ কিলোমিটার বা সর্বোচ্চ ১৮৫ কিলোমিটার গতিবেগ নিয়ে আছড়ে পড়বে। তবে বিপর্যয় মোকাবিলায় প্রস্তুত রয়েছে সেনা, বায়ু সেনা, নৌসেনা, উপকূলরক্ষী বাহিনী, বিপর্যয় মোকাবিলা বাহিনী সহ আরও বিভিন্ন বিভাগ।

বাংলায় পরিস্থিতি যাই হোক না কেন, রাত জেগে কন্ট্রোল রুম থেকে রাজ্যের উপর নজরদারী করবেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা ব্যানার্জি। বিপদের দিনে রাজ্যবাসীর পাশে থাকার বার্তা দিয়েছেন তিনি। বিপর্যয়ের পূর্বে আগাম সতর্কতার জেরে, কলকাতা বিমানবন্দরে বুধবার সাড়ে ৮ টা থেকে সন্ধে ৭টা ৪৫ মিনিট পর্যন্ত বিমান পরিষেবা বন্ধ রাখা হয়েছে।

শেষ পাওয়া খবর অনুযায়ী, দিঘা থেকে ১০০ কিমি, ধামড়া থেকে ৪০ কিমি দূরে রয়েছে ঘূর্ণিঝড় ইয়াস। ঘণ্টায় প্রায় ১২ কিলোমিটার গতিতে দ্রুত ওড়িশার দিকে এগিয়ে যাচ্ছে ইয়াস। যার ফলে ইতিমধ্যেই দিঘায় এবং ধামড়ায় প্রবল জলোচ্ছ্বাস শুরু হয়ে গিয়েছে। বেশকিছু এলাকা ইতিমধ্যেই জলমগ্ন হয়ে পড়েছে। অন্যদিকে বৃষ্টিও শুরু হয়ে গিয়েছে বেশকিছু এলাকায়।

ভাল লাগলে শেয়ার করুন
  • শেয়ার করুন