আজ শনিবার, ২১শে সেপ্টেম্বর, ২০১৯ ইং, ৬ই আশ্বিন, ১৪২৬ বঙ্গাব্দ

আসামির’ স্ত্রীকে ধর্ষণের ঘটনায় পিবিআইয়ের ঘটনাস্থল পরিদর্শন

মিলন হোসেন বেনাপোল :
শার্শার ‘আসামির’ স্ত্রীকে সংঘবদ্ধ ধর্ষণের ঘটনায় ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছে পিবিআইয়ের উর্ধ্বতন কর্মকর্তারা।
আজ সোমবার দুপুরে পিবিআআয়ের খুলনা বিভাগীয় পুলিশ সুপার আতিকুর রহমান মিয়া, সহকারি পুলিশ সুপার একেএম জাহাঙ্গীর হোসেন, তদন্তকারী অফিসার এসআই মোনায়েম হোসেনসহ অন্যান্য কর্মকর্তারা ভুক্তভোগী গৃহবধূর বাড়িতে যান। এসময় তারা প্রতিবেশিদের সাথে কথা বলেন।
এসময় পুলিশ সুপার আতিকুর রহমান মিয়া সাংবাদিকদের জানান, ‘দুইদিন আগে মামলা তদন্তভার গ্রহন করার পর আজ ভিকটিমের বাসা পরিদর্শন করছি। আর তিনজনকে তিনদিনের রিমান্ড মঞ্জুর করেছেন আদালত। জিজ্ঞাসাবাদ শেষে তাদের দেয়া তথ্য যাচাই বাচাই করা হবে।
প্রসঙ্গত. যশোর শার্শা উপজেলার লক্ষণপুর গ্রামে গত ২ সেপ্টেম্বর গণধর্ষণের শিকার হন ওই গৃহবধূ। এ ঘটনায় গোড়পাড়া পুলিশ ক্যাম্পের ইনচার্জ এসআই খায়রুল আলম ও তার সোর্স কামারুল তাকে ধর্ষণ করেছে বলে অভিযোগ করেন। এছাড়া লতিফ ও কাদের নামে আরো দুজন সেসময় ঘরের বাইরে অবস্থান করছিল। পরের দিন ওই গৃহবধূ ডাক্তারি পরীক্ষার জন্য যশোর জেনারেল হাসপাতালে গেলে বিষয়টি জানাজানি হয়। পুলিশ ওইদিনই তাকে হেফাজতে নিয়ে ডাক্তারি পরীক্ষা সম্পন্ন করে মামলা নেয়। তবে এজাহারে প্রধান অভিযুক্তের নাম বাদ দেয়া হয়। পরবর্তীতে ৬ সেপ্টেম্বর মামলাটি তদন্তের ভার পায় পিবিআই। মামলার তদন্ত কর্মকর্তার তদন্তের পাশাপাশি আজ সোমবার ঘটনাস্থল পরিদর্শন  করে পিবিআই।
গত ২৫ আগস্ট মাদক মামলায় স্বামীকে জেলে পাঠানোর ৯ দিন পর ওই গৃহবধূর কাছে ঘুষ দাবি করা হয়। ঘুষের টাকা দিতে রাজি না হওয়ায় ওই গৃহবধূ ধর্ষণ করে।
প্রেরক
মিলন হোসেন বেনাপোল
তারিখ ১০/০৯/১৯
মোবাইল ০১৭১২২১৭১৪৩
ভাল লাগলে শেয়ার করুন

মন্তব্য করুন

     এই বিষয়ের আরো সংবাদ